Thursday, 24 November 2016

নদীয়া-কাহিনী

সদাগর পিতৃ উদেশে সিংহল বাইতে ছিলেন তৎকালে তিনি এই উলার নাচে নিজ জাহাজ নঙ্গর করিয়া বৈশাখী পূর্ণিমা তিথিতে প্রসিদ্ধ উলাইচণ্ডীদেবীর পূজা করিয়াছিলেন। যথা –“বটমূলে ভগবতী,যথা করেন স্থিতি গুণনিত সেই উলা ধামে" ইত্যাদি। এই উলাইচণ্ডীদেবী অদ্যাপিও প্রস্তর ২৩রপে উলার দক্ষিন পুৰ্ব্ব প্রাস্তে স্থিত সেই বটমূলে বিরাজিত রহিয়াছেন। কৰিবর হুর্গপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় মহাশয়ের স্বরচিত গঙ্গীভক্তি তরঙ্গিণী নামক প্রাচীন বাঙ্গালী গ্রন্থে, গঙ্গায় উক্টর অবস্থান এবং তীরে উলাইচণ্ডী দেবীর অবস্থিতির উল্লেখ করিয়া গিয়াছেন । যথা— “অশ্বিকা পশ্চিম পারে, শাস্তিপুর পুর্বধারে, রাখিলা দক্ষিনে গুপ্তিপার । উল্লাসে উলায় গতি, বট মুলে ভগবতী, যথায় পাতকী নহে ছাড়া ॥ বৈশাখেতে যাত্র হয়, क्षझ caणांक द्वाक्रण शम्ल, পূর্ণিমা তিথির পুন্ত চয়। মৃত্য গীত নানা নাট, দ্বিজকরে চশুিপাঠ, মানে যে মানসা সিদ্ধি হয়" ॥ ইত্যাদি । যদিও কবিবর বর্ণিত লক্ষ লোকের সমাগম না হউক তথাপি আজ পর্য্যত্ব চণ্ডিমাতার যাত উপলক্ষে বৈশাখী পুর্ণিমার দিনে উলাতে যে লোক সমাগম এবং পুঞ্জ প্রদানের যে ধুমধাম হইয়া থাকে তাহ দেখিবার অধোগ্য নহে । উলার অপর নাম বীরনগর ; কথিত আছে খ্ৰীষ্ট্রীয় উনবিংশ শতাবির প্রারক্তে অত্রস্থ মুখোপাধ্যায় জমীদার বাবুদের বাটতে সশস্ত্র এক দল দহু আসিয়া লুণ্ঠনে প্রবৃত্ত হইলে বাবুদিগের তৎকালীন গ্রাম্য প্রতীযেণীবৰ্গ সমবেত হইয়৷ বিশেষ বীরত্ব প্রকাশ পূৰ্ব্বক ঐ দনু্যদলের অধিকাংশ হুবুহুদিগকে হত ও আহতকরিয়া ডাকাইতদিগকে বন্ধী করিয়া রাধিয়াছিল বলিয়া নদীয়া জেলার তদানীন্তন মজিষ্ট্রেট সাহেব মহোদর উলাকে “বীরনগর" এই আক্ষ্য প্রদান করিয়া ছিলেন । তদবধি সরকারি বাবতীয় ব্যাপারে এবং মিউনিসিপালিটি এতুতিতে উল, বীরনগর নামেই অভিহিত হইয়া আদিতেছে।

No comments:

Post a Comment